1. [email protected] : mahi :
  2. [email protected] : Kaler Kollol : Kaler Kollol
  3. [email protected] : saniur rahman : saniur rahman
  4. [email protected] : Saiful Islam : Saiful Islam
শনিবার, ২২ জানুয়ারী ২০২২, ০২:২৮ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
উপকূল এক্সপ্রেস ট্রেন পথচলার ৩৬ বছর পার করলো জেলা ছাত্র মৈত্রীর মানববন্ধন শারদীয় দূর্গা উৎসবের পাঁচ দিনের ছুটির দাবীতে এশিয়া প্যাসিফিকের ছাত্রদের মানববন্ধন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ছাত্র মৈত্রী’র শিক্ষা দিবস পালন অবিলম্বে পাঁচ দফা দাবি বাস্তবায়নের আহবান শিক্ষাখাতে বাজেটের ২৫% , জিডিপির ৮% বরাদ্দ ও প্রাইভেট ভার্সিটির উপর ১৫% ভ্যাট বাতিলের দাবিতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া ছাত্র মৈত্রী’র মানববন্ধন হেফাজতের ধ্বংসযজ্ঞ: মামলা না নিলে আদালতে যাবেন এমপি মোকতাদির চৌধুরী সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের নিঃশর্ত মুক্তির দাবি সাতক্ষীরা কলারোয়ায় শেখ হাসিনার গাড়ি বহরে হামলা, দোষীদের শাস্তির দাবিতে জেলা আ’লীগের মানববন্ধন দোষ স্বীকার করে জবানবন্দিতে যা বললেন লিয়াকত এইচ এস সি পরীক্ষার গুজবে কান না দেওয়ার আহবান শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের
শিরোনাম
বাংলাদেশ কংগ্রেস’র বিবৃতি নির্বাচন কমিশনার গঠন আইন সংবিধান পরিপন্থী উপকূল এক্সপ্রেস ট্রেন পথচলার ৩৬ বছর পার করলো শাহবাজপুরে স্কুল শিক্ষার্থীদের করোনার টিকাদান শুরু জেলা ছাত্র মৈত্রীর মানববন্ধন ঘাটুরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্রে ভোট দিতে এলেন ১০৮ বছর বয়সী খোদেজা বেগম সুহিলপুর ইউপি নির্বাচনে জয়ী হয়ে মডেল ইউপি গড়তে চান আব্দুর রশিদ ভূঁইয়া ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ট্রেন টিকিট কালোবাজারির জয় জয়কার,২৩০ টাকার টিকেট বিক্রি হচ্ছে ৬৫০টাকায় ওয়ার্কার্স পার্টির প্রার্থী গোলাম নওজব চৌধুরীর মনোনয়ন বৈধ হলো টাংগাইলে মির্জাপুরের উপনির্বাচনে ওয়ার্কার্স পার্টির মনোনয়ন পেলেন পাওয়ার চৌধুরী সারাদেশে গণ পরিবহনে হাফ ভাড়ার দাবীতে জেলা ছাত্র মৈত্রীর মানববন্ধন

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ট্রেন টিকিট কালোবাজারির জয় জয়কার,২৩০ টাকার টিকেট বিক্রি হচ্ছে ৬৫০টাকায়

  • সোমবার, ২৭ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ৩৬৩৮ বার পড়া হয়েছে

সৈয়দ আমিনুল ইসলাম:   মহানগরএক্সপ্রেস ট্রেনের ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে চট্টগ্রামের ২৩০ টাকার টিকিট ৬০০ থেকে ৬৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে বলে অভিযোগ সাধারণ যাত্রীদের ।

সৈয়দ মাহফুজুর ইসলাম নামের এক যাত্রী বলেন, মহানগর এক্সপ্রেস ট্রেনের টিকিট কাউন্টার ও অনলাইনে বেশ কয়েকবার চেষ্টা করেও টিকিট সংগ্রহ করতে পারিনি। তাই বাধ্য হয়েছি ৪৬০ টাকার টিকিট ১৩০০ টাকা দিয়ে কিনতে। ব্রাহ্মণবাড়িয়া স্টেশন সহ আশুগঞ্জ, ভৈরব, কসবা ও আখাউড়া স্টেশন থেকে মহানগর এক্সপ্রেস ট্রেনের টিকিট কালোবাজারির কাছে মজুদ থাকে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেল স্টেশনের বরাদ্দ করা আসন সংখ্যার তুলনায় যাত্রীর চাপ অনেক বেশি। চাহিদার তুলনায় কম আসন থাকায় যাত্রীরা বাধ্য হয় অতিরিক্ত দামে টিকিট কিনতে।

বিভিন্ন যাত্রীদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, কালোবাজারির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য স্টেশন মাস্টারের নিকট একাধিকবার অভিযোগ দেয়া হলেও কার্যকরী কোনো পদক্ষেপ গ্রহন করেনি। কালোবাজারিরা স্টেশনের বরাদ্দকৃত সকল টিকিট সংগ্রহ করে চড়া দামে সাধারণ যাত্রীদের কাছে বিক্রি করছেন বলে জানান যাত্রীরা। তাঁদের দৌরাত্ম্যের কারণে যাত্রীরা জিম্মি।

ট্রেনের যাত্রীদের বড় একটি অংশ অনলাইন সুবিধার বাইরে। বেশীরভাগ সময় অগ্রিম টিকিট এর জন্য কাউন্টারে যোগাযোগ করেও টিকিট পাওয়া না যাওয়ায় বাধ্য হয়ে বেশি দামে কালোবাজারে টিকিট কিনতে হয়। ভাগ্য ভালো থাকলে অনলাইনে টিকিট পাওয়া যায়, তবে সেটা কঠিন ব্যাপার। অনলাইনে টিকিট ছাড়ার এক বা দুই মিনিটের মধ্যে সব টিকিট শেষ হয়ে যায়! কেউ কেউ সিট বরাদ্দ পেয়ে টাকা পরিশোধ করতে গিয়ে দেখে টিকিট বিক্রি শেষ!

কালোবাজারিচক্র অনলাইনে সক্রিয় হয়ে একযোগে টিকিট কেটে নেয় বলে অভিযোগ যাত্রীদের।

কাউন্টারে কর্তব্যরত টিকিট বিক্রেতাকে অগ্রিম টিকিট ক্রয়ের বিষয়ে জিজ্ঞেস করলে তিনি বলেন ‘কাউন্টারে তো একটিও অগ্রিম টিকিট নেই আপনি বরং ব্লেকে যোগাযোগ করে দেখেন তাহলে পেতেও পারেন। এই টিকিট বিক্রেতাকে নাম জিজ্ঞেস করলে নিজের নামও প্রকাশ করতে অনিচ্ছুক তিনি।

এই বিষয়ে কথা বলতে স্টেশন মাস্টারের রুমের দরজায় একাধিকবার ধাক্কা দিলেও তিনি দরজা খুলে বের হতে নারাজ।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন